আজ ১৯শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৩রা আগস্ট, ২০২০ ইং

রাজীবপুরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তুলে নিয়ে ব্যবসায়ীকে মারপিট ও টাকা লুট

ভাপ্রেস প্রতিবেদক, রাজীবপুর।।
কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলা শহরের থানা মোড় সংলগ্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে এরশাদ আলী(৫৫) নামে এক ব্যবসায়ীকে তুলে নিয়ে গিয়ে মারপিট ও অবরুদ্ধ করে রাখার ঘটনা ঘটেছে। শনিবার সকালের এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।
মামলা সুত্রে জানাযায়, শনিবার সকালে সবুজবাগ গ্রামের এরশাদ আলীর বাড়ি সংলগ্ন পুকুর থেকে জোর পূর্বক মাটি কেটে নিয়ে যাচ্ছিল কাচারী পাড়া গ্রামের গোলাম মোস্তফা (৩৫), গোলাম ফারুক (৩৮) ও আব্দুর রফিক (৫০)। এ সময় এরশাদ আলীর ছেলে রঞ্জু মিয়া (২৫) ও নজরুল ইসলাম বাবু (৩১) মাটি কাটতে নিষেধ করলে তাদের মারপিট করে। পরে স্থানীয়রা এসে দুই ভাইকে উদ্ধার করে রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়।
পরে রাজীবপুর বাজারে এরশাদ আলীর ইলেকট্রনিকস এর দোকানে ঢুকে কাচারীপাড়া ও সবুজবাগ গ্রামের আব্দুর রফিক(৫০), মঞ্জুরুল ইসলাম(২২), গোলাম মোস্তফা(৩৫), বাবুল হোসেন (৩৫), বাদল মিয়া (৩২), সবুজ মিয়া(৩০), সোলায়মান(২৫) এরশাদ আলীকে মারধর করে টেনে হিচরে বের করে নিয়ে গিয়ে অন্য দোকানে অবরুদ্ধ করে রাখে ও ব্যবসায়ীর দোকানের ক্যাশ বাক্স থেকে ১ লাখ ২৫ হাজার টাকাও ছিনিয়ে নিয়ে যায়।
এ সময় বাজারের দায়িত্বরত পুলিশ, আনসার সদস্য এবং চৌকিদাররা ঘটনাস্থলে আসছে এমন খবর পেয়ে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা এরশাদ আলীকে উদ্ধার করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়।
রবিবার (১২এপ্রিল) রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার দেলোয়ার হোসেন বলেন, রোগীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি এখনও হাসপাতালে ভর্তি আছে এবং তার চিকিৎসাধী চলছে ।
এ দিকে দিনদুপুরে একজন ব্যবসায়ীকে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ঢুকে হামলা করায় বাজারের অন্যান্য ব্যবসায়ীরা আতঙ্কে রয়েছেন। এ ঘটনায় বণিক সমিতির পক্ষ থেকে প্রতিবাদ সভার দাবিও জানিয়েছেন তারা।
রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন এরশাদ আলী সাংবাদিকদের জানান, আমার নিজস্ব পুকুর এবং বসতবাড়ি  দখল করার জন্য দীর্ঘ দিন থেকে এই চক্রটি তৎপরতা চালাচ্ছে।গতকাল সকালে জোর করে মাটি কাটার সময় বাঁধা দিলে আমার দুই ছেলেকে মারপিট করে।আবার বাজারে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা চালিয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশ্যে  পিটিয়ে জখম এবং মারপিট করে। ক্যাশবাক্স থেকে টাকাও ছিনিয়ে নিয়েছে তারা।পবিরার পরিজন নিয়ে চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন বলেও জানান তিনি।
লিখিত অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে রাজীবপুর থানা অফিসার ইনচার্জ(ওসি) গোলাম মোর্শেদ তালুকদার জানান,ওই ঘটনার এরশাদ আলী এবং তার ছেলে নজরুল ইসলাম  বাদী হয়ে পৃথক ভাবে কয়েকজনের নাম উল্লেখ করে দুটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ জাতীয় আরও খবর.......

এ সপ্তাহের পত্রিকা

খবরটি বেশী পড়া হয়েছে

Don`t copy text!