আজ ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৪ই আগস্ট, ২০২০ ইং

ফরিদপুরে গৃহবধূকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ

ভাপ্রেস প্রতিবেদক, ফরিদপুর।।

ফরিদপুরের চরভদ্রাসন উপজেলার পদ্মা নদীর গোপালপুর ঘাটে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। পরে চার যুবক মিলে গণধর্ষণের পর ভিডিও ধারণ করে চাঁদা দাবি করেছেন। এ ঘটনায় চরভদ্রাসন থানায় মামলা করা হয়েছে। এরই মধ্যে এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

জানা যায়, রবিবার (১৪ জুন) বেলা ১১টার দিকে ওই গৃহবধূ দুই শিশু সন্তানকে নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা হন। গোপালপুর ঘাটের যাত্রী ছাউনিতে অবস্থানকালে চার যুবক তাকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। এ সময় ধর্ষণের ভিডিও ধারণ করেন যুবকরা।

এরপর গত দুদিন ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে গৃহবধূর কাছে ৩০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন ধর্ষকরা। পরে বিষয়টি থানা পুলিশকে জানান গৃহবধূ।

গতকাল মঙ্গলবার রাতে ধর্ষকদের চাঁদা দেওয়ার কথা বলে উপজেলার চরহাজীগঞ্জ বাজার এলাকা থেকে শাহীন মোল্যা (২৫) নামের এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। শাহীন মোল্যা উপজেলার গাজীরটেক ইউনিয়নের রহমান প্রামাণিকের ডাঙ্গী গ্রামের আব্দুস সালাম মোল্যার ছেলে।

নির্যাতিত গৃহবধূর স্বামী জানান, তার বাড়ি সদরপুর উপজেলার ভাষানচর ইউনয়নের নতুন বাজার গ্রামে। তিনি ঢাকার একটি আইস ফাক্টরিতে চাকরি করেন। ঘটনার দিন সকালে দুই শিশুসন্তান নিয়ে গ্রামের বাড়ি থেকে স্বামীর কাছে ঢাকায় যাওয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হন স্ত্রী। এ সময় স্ত্রী-সন্তানদের এগিয়ে নেওয়ার জন্য ঢাকা থেকে এসে উপজেলার পদ্মা নদীর চরমৈনট ঘাটে অবস্থান করতে থাকেন স্বামী।

এদিকে, গৃহবধূ সন্তানদের নিয়ে বৃষ্টির মধ্যে উপজেলা পদ্মা নদীর গোপালপুর ঘাটে এসে যাত্রী ছাউনিতে অপেক্ষা করতে থাকেন। এ সময় গৃহবধূকে তুলে নির্জন স্থানে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন যুবকরা। এ সময় তারা গণধর্ষণের ভিডিও ধারণ করেন।

ঘটনার পর থেকে ধর্ষকরা ভিডিও ভাইরাল করার হুমকি দিয়ে গৃহবধূ ও তার স্বামীর কাছে ৩০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করলে ধর্ষকরা গৃহবধূর স্বামীর মোবাইলে ধর্ষণের ভিডিও পাঠান। মঙ্গলবার গৃহবধূ ও তার স্বামী পুলিশের কাছে সেই ভিডিও জমা দেন। পরে চাঁদার টাকা দেওয়ার ফাঁদ পেতে এক ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

আজ বুধবার (১৭ জুন) চরভদ্রাসন থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজনীন খানম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা চরভদ্রাসন থানার এসআই ইকবাল হোসেন বুধবার দুপুরে জানান, মামলাটির তদন্ত চলছে। পরে বিস্তারিত জানানো হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ জাতীয় আরও খবর.......

এ সপ্তাহের পত্রিকা

খবরটি বেশী পড়া হয়েছে

Don`t copy text!