আজ ২৪শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৭ই আগস্ট, ২০২০ ইং

সুন্দরগঞ্জে শিক্ষকের অপসারণ দাবিতে মানববন্ধন

আবু বক্কর সিদ্দিক, গাইবান্ধা।।
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার কালিয়ার ছিড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাতাল প্রকৃতির প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকের ব্যাপক অনিয়ম, স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদ জানিয়ে অবিলম্বে তাদের অপসারণ দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন এলাকাবাসী।
বুধবার সকালে বিদ্যালয়ের সামনে ধুবনী-বেলকা পাকা সড়কে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠাতা মরহুম নজরুল ইসলামের পুত্র শিক্ষক সাখাওয়াৎ হোসেন মিলন, বজলুর হাসান, সাইফুল ইসলাম সুমন, শিক্ষার্থী অভিভাবক মেহেরান নেছা, ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষর্থী আসাদুজ্জামান, মাশরাফি, প্রবীণ নারী আমিনা বেওয়া প্রমূখ।
এসময় মাদক সম্পৃক্ততা, ল্যাট্রিন নির্মাণে চাঁদাবাজি, দায়িত্বে অবহেলা, কমিটি গঠনের ক্ষেত্রে ব্যাপক অনিয়ম, বেপরোয়াভাবে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের প্রতি দূর্ব্যবহার, নেশাগ্রস্থ হবার ব্যাপারে ধিক্কার জানিয়ে প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জল হোসেনের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যাবস্থা গ্রহণ, সহ: শিক্ষক শামিমা আক্তারসহ অন্যান্য শিক্ষকরা প্রধান শিক্ষকের মতই ১৫-২০ দিন অন্তর বিদ্যালয় এসে হাজিরা খাতায় স্বাক্ষর করে চলে যান। এছাড়া, বিদ্যালয়ে পাঠদান থেকে বিরত থাকার পরও বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচীর আওতায় শিক্ষর্থীদের জন্য বরাদ্দের বিস্কুট আত্মসাৎ, উপবৃত্তি ও গৃহ-হীনদের তালিকা প্রণয়নের ক্ষেত্রে রহস্যজনক কারণে বিদ্যালয় এলাকা (ক্যাচমেন্ট এরিয়া) বহির্ভূত ব্যক্তির নাম অন্তর্ভূক্ত করেছেন প্রধান শিক্ষক তোফাজ্জল হোসেন ও তার অন্যতম সহযোগী সহ: শিক্ষক শামিমা আক্তার বলে বক্তাগণ তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তিসহ কোমলমতি শিক্ষার্থীদের জন্য বিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ ফিরে আনার দাবি জানান। একই দাবিতে ইতোপূর্বে এলাকাবাসীর পক্ষে সাখাওয়াৎ হোসেন মিলন উপজেলা শিক্ষা অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ পত্র দাখিল করেন। কোন রহস্যজনক কারণে দায়েরকৃত অভিযোগ মর্মে ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় সে ব্যাপারে মানববন্ধনে বক্তারা তীব্র প্রতিবাদসহ উর্দ্ধোতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ জাতীয় আরও খবর.......

এ সপ্তাহের পত্রিকা

খবরটি বেশী পড়া হয়েছে

Don`t copy text!