আজ ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং

গাইবান্ধায় স্কুলছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন

ভাপ্রেস প্রতিবেদক, গাইবান্ধা।।

স্কুলের রাস্তা থেকে নবম শ্রেনির এক ছাত্রীকে অপহরণের পর ধর্ষণ মামলায় মারুফুল ইসলাম (২৯) নামে এক ব্যক্তিকে একই সঙ্গে যাবজ্জীবন ও পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে তিন মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া মামলার বাকি তিন আসামিকে খালাস দেওয়া হয়।

বুধবার (২৫ নভেম্বর) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক কাজী মুরাদে মওলা (জেলা জজ আদালত) এ রায় দেন।

কারাদণ্ড প্রাপ্ত মারুফুল ইসলাম গাইবান্ধা জেলার সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামের প্রয়াত বজলুর রহমানের ছেলে।

মামলার এজাহারে জানা যায়, ২০১৩ সালের ২ জানুয়ারি গাইবান্ধা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের গেটের সামনে থেকে নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে নিয়ে যায় আসামী মারুফুল। সে সময় ওই ছাত্রীকে ঘরে আটকে ধর্ষণ করে আসামী মারুফুল।

অপহরণের দুই দিন পর ওই ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ওই দিন পুলিশ মির্জাপুরে অভিযান চালিয়ে মারুফুলকে গ্রেপ্তার ও স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় লজ্জায় আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় স্কুলছাত্রীটি।

মামলার বাদি পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গাীর হোসেন জানান, এ মামলায় আসামী মারুফুল হাইকোর্ট থেকে অন্তর্বর্তীকালীন জামিনে ছিল। রায়ের দিন দুপুরে আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন মারুফুল। দীর্ঘ শুনানি ও স্বাক্ষীগণের সাক্ষ্য প্রমাণে আদালত তাকে দোষী সাব্যস্ত করে এ রায় দেন।

আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিউকিটর (এপিপি) মহিবুল হক সরকার মোহন জানান, রায় ঘোষণার পর আসামি মারুফুল ইসলামকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন, আদালতের স্পেশাল পাবলিক প্রসিউকিটর (এপিপি) মোছা. শিউলী বেগম।

Leave a Reply

     এ জাতীয় আরও খবর.......

খবরটি বেশী পড়া হয়েছে

Don`t copy text!